সন্তানকে ফিরে পেতে আদালতের দ্বারস্থ হলেন বাবা

146

স্টাফ রিপোর্টার:
ডিভোর্সের পর সন্তানকে নিয়ে দেশ ছেড়ে যান মা। লন্ডনে গিয়ে ফের বিয়েও করেছেন। এ ঘটনায় সন্তান ফিরে পেতে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন এক সময় লন্ডনে থাকা বাবা। খবর চ্যানেল২৪। চট্টগ্রামের ছেলে নিয়াজ মোর্শেদ। ২০০৭ সাল থেকে থাকেন লন্ডনে। বিয়ে করেন একই জেলার শাহিদা শিপনকে। এরপরপরই স্ত্রীকে নিয়ে যান লন্ডন। তাদের প্রথম সন্তানের জন্ম হয় ২০১৪ সালে।

তবে সন্তান জন্মের পর থেকে পাল্টে যায় শাহিদা শিপন। স্বামীকে রেখেই সন্তানসহ চলে আসেন বাংলাদেশে। স্বামীকে শর্ত দেন যদি সে লন্ডন থেকে একেবারেই চলে না আসেন তাহলে আর সংসার করবেন না।

এরই মধ্যে নিয়াজ লন্ডনে সিটিজেনশীপ পাওয়ার সব কাগজ প্রস্তুত করলেও বাধ্য হয়ে চলে আসেন। এরপর স্ত্রী তার সাথে দেখা না করে দুদিন পর সন্তানসহ চলে যান লন্ডন। সেখানে গিয়ে বিয়েও করেন। কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে নিয়াজ শেষ পর্যন্ত দারস্থ হন উচ্চ আদালতের। হাইকোর্ট পুরো ঘটনাটি পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

আইনজীবীরা এমন ঘটনাকে বলছেন শিশু অপহরণ। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ফাওজিয়ার করিম জানান, বাংলাদেশের আইনে ডিভোর্স হওয়ার পরও কোন সন্তানকে দেশের বাইরে নিতে হলে আদালতের অনুমতি নিতে হয়।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে শিক্ষক তৌহিদুল হক বলছেন, সংসার ভাঙ্গার এমন গল্প ক্ষতি করছে পুরো সমাজের। তবে শাহিদা শিপনের লন্ডনের নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে বন্ধ পাওয়া যায়। তার মা বলছেন, এটি গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়।

Loading...