ঈদের চাঁদ দেখা গেছে, সৌদি আরবে ঈদ আগামীকাল

62

স্টাফ রিপোর্টার:সৌদি আরবে সোমবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। আগামীকাল মঙ্গলবার দেশটিতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। – রাজধানীতে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায়

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ে ধর্ম প্রতমিন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহের সভাপতিত্বে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় বলা হয়, আবহাওয়ার কারণে বা অন্য কোনো অনিবার্য কারণে তা পরিবর্তিত হলে সেই জামাত হবে সকাল ৯টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে।

মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন জানান, সভায় যথাযোগ্য মর্যাদা, ভাব-গাম্ভীর্য এবং উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনের লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি প্রণয়ন এবং সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের বিষয়ে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়, সারাদেশে বিভাগ/জেলা/

উপজেলা/সিটি করপোরেশন/পৌরসভা/সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ/বেসরকারি সংস্থাসমূহের প্রধানগণ জাতীয় কর্মসূচীর আলোকে নিজ নিজ কর্মসূচি প্রণয়নপূর্বক পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করবে।

আফ্রিকার সবচেয়ে বড় মসজিদের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত
দীর্ঘ সাত বছর এবং ১০০ কোটি ডলার ব্যয়ে অবশেষে সম্পন্ন হল আলজেরিয়ার নতুন মসজিদের নির্মাণ কাজ।

আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্সে চালু হওয়ার অপেক্ষায় থাকা আফ্রিকার সবচেয়ে বড় এই মসজিদটি নির্মাণে সময় লেগেছে সাত বছর। চার লাখ স্কয়ার মিটার এলাকার ওপর নির্মিত দ্য গ্রেট মস্ক অব আলজিয়ার্স বা জামা আল জাজেইর নামে এই মসজিদটি একটি ২৬৫ মিটার (৮৭০ ফুট) মিনার রয়েছে। ওই মিনারের ভেতর একটি পর্যবেক্ষণ ডেকও রয়েছে।

আলজিয়ার্স উপকূলের কাছে অবস্থিত যৌগিক গম্বুজ বিশিষ্ট এই মসজিদে একসাথে ১২ লাখ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। এছাড়া মসজিদে যে ভূগর্ভস্থ পার্কিং রয়েছে সেখানে সাত হাজার গাড়ি রাখার ব্যবস্থা আছে। মসজিদ কমপ্লেক্সে কুরআনিক স্কুল, লাইব্রেরি, রেস্টুরেন্ট, অ্যাম্ফিথিয়েটার এবং আলজেরিয়ার ইতিহাসের জন্য নিবেদিত একটি গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে।

আয়তনের হিসেবে এই মসজিদটি এখন বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম। বিশ্বে আয়তনের দিক দিয়ে বৃহত্তম মসজিদ হচ্ছে মক্কার পবিত্র মসজিদ ‘বায়তুল্লাহ এবং মদিনার ‘মসজিদে নববী’। এই দুটি মসজিদই মুসলিমদের পবিত্রতম স্থান এবং প্রতিবছর লাখ লাখ মুসল্লি হজের সময় এই মসজিদে ইবাদত করেন। এদিকে, দ্য গ্রেট মস্ক অব আলজিয়ার্স মসজিদের মিনারটি আফ্রিকার সবচেয়ে উঁচু। আগে আফ্রিকার সবচেয়ে উঁচু মিনার ছিল মরক্কোর কাসাব্লাঙ্কার হাসান দ্বিতীয় মসজিদের। ওই মসজিদের মিনারের উচ্চতা ৬৭০ ফুট।

অন্যদিকে গত বছরের শেষের দিকে মসজিদটি উদ্বোধন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিশ্বব্যাপী তেলের দাম কমে যাওয়ায় মসজিদটির বাজেট সঙ্কট দেখা দেয়। ফলে এর নির্মাণ বিলম্বিত হয়। উল্লেখ্য, আলজিয়ার্সের মসজিদটি নির্মাণ করেছে চায়না স্টেট কনস্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন (সিএসসিইসি)। চীনের বহুজাতিক এই প্রতিষ্ঠানটি আফ্রিকা ও বিশ্বব্যাপী ভারী শিল্প ও অবকাঠামো নির্মাণে কাজ করে।

Loading...