বেগম জিয়া ‘রাজার হালে’ আছেন : প্রধানমন্ত্রী

15

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বেগম জিয়া জেলে রাজার হালে আছেন। জেলখানা থেকে হাসপাতালে তাঁর জন্য মেড দেওয়া হয়েছে।’ তার প্রতি সরকারের প্রতিহিংসা নেই, বিএনপি নেত্রীর শারীরিক অসুস্থতা পুরনো বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।তিনি বলেছেন, ‘পৃথিবীতে শুনি নাই সাজাপ্রাপ্ত আসামির জন্য আবার কাজের বুয়া থাকে। মানুষ এমনি কাজের বুয়া পায় না। খালেদা জিয়ার জন্য কারাগারে স্বেচ্ছায় একজন কারাবরণ করেছে খালেদা জিয়ার সেবা করার জন্য। এত দূর সুবিধা তাকে দেওয়া হচ্ছে কারণ আমাদের মধ্যে প্রতিহিংসা পরায়নত নাই।’
বুধবার (০৪ ডিসেম্বর) বিকেলে গণভবনে আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। ২১তম জাতীয় কাউন্সিল সামনে রেখে গণভবনে বসে আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির এই সভা। যেখানে ছিলেন, দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, সাংগঠনিক জেলার প্রতিনিধিরা ও সভাপতি মনোনিত সদস্যরা।

আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে না জনিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক ধারা নস্যাৎ করার অপচেষ্টা করছে বিএনপি। জিয়াউর রহমানের ধারাবাহিকতায় খালেদা জিয়াও সন্ত্রাসের পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। হত্যার রাজনীতিকে দিয়েছেন বৈধতা।’তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থেকে আওয়ামী লীগ উন্নয়নের পাশাপাশি দৃষ্টান্ত গড়েছে প্রতিহিংসামুক্ত রাজনৈতিক সংস্কৃতির বলেও জানান শেখ হাসিনা।শেখ হাসিনা বলেন, ‘মানুষ হত্যা, আগুন দিয়ে পুরানো, এতিমের টাকা আত্মসাৎ, দুর্নীতি, একুশের আগস্টে গ্রেনেড হামলা করে আইভি রহমানসহ মানুষ হত্যা। সব বিএনপি করে। জিয়াও যেমন খুনি ছিল খালেদা জিয়াও আরেক খুনি তার ছেলেও খুনি। এই পরিবারটাই খুনের পরিবার।’ তিনি আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়া অসুস্থতার অজুহাতে কোর্টেও যায় না। তার বিরুদ্ধে গেটকো কেস, নাইকোর কেস। এই সমস্ত তথ্য কিন্তু আমাদের না। অ্যামেরিকা থেকে এই তথ্য বের হয়েছে। ’

Loading...