আ.লীগ নেতার ডিসকোবার থেকে ম’দসহ ১২ নারী আটক!

1704

গাজীপুর মহানগরের টঙ্গীতে আওয়ামী লীগের জার্মান প্রবাসী নেতার বিলাসবহুল আবাসিক হোটেল জাবান ও ডিস্কো বারে পুলিশ অভিযান চালিয়েছে ম’দ উদ্ধার করেছে।এ সময় বিপুল পরিমাণ মা’দকদ্রব্যসহ অ’সামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৮ নারী পুরুষ গ্রে’ফতার করা হয়। ক্লাবটির মালিক জার্মান আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাদল ও জার্মান আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

এ ঘটনায় মালিক বাদলকে গ্রে’ফতার করতে পারেনি পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেনের নেতৃত্বে হোটেল ‘জাভান’ অভিযান চালায় টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. কামাল হোসেন বলেন, ওই হোটেলে প্রতি রাতেই চলে অ’সামাজিক কার্যকলাপ। বিভিন্ন এলাকার তরুণ-তরুণীরা হোটেলটিতে এসে সন্ধ্যার পর থেকে গভীর রাত অবধি ম’দ বি’য়ার ও ন’গ্ন অবস্থায় নাচ-গান করত। এরপর মা’তাল অবস্থায় সেখানে হোটল কক্ষ ভেতর অ’সামাজিক কার্যকলাপ চালাত।

বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের হোটেলটিতে অভিযান পরিচালনার পর ৩৩ বোতল বিদেশী ম’দ ও ৬০ ক্যান বি’য়ার উদ্ধার করা হয়। এ সময় ১২ যুবতী ও ৬ যুবককে গ্রে’ফতার করা হয়।

আটককৃতরা হলো- পলাশ (৪০), জুয়েল রানা (৩২), রাফি রহমান (৪২), আদনান (৩০), ইয়াছিন (২৮), আলিম মোল্লা হোসেন (৩৮), অঞ্জনা আক্তার (২০), আখি (২০), জান্নাত (২৩), রিয়ামনি (২০), নিশা (২০), সাথী আক্তার (২০), অঞ্জনা আক্তার নুপুর (২৪), আফরিন (২০), মনি (২০), জিন্নাত আক্তার (৩০), কলি আক্তার (২০) ও ফারিয়া আক্তার (২২)।

এ বিষয়ে হোটেল মালিক মো. বাদল শেখ জানান, আমার হোটেলে বারের সরকারী অনুমোদন রয়েছে। তথাপি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হোটেলে অভিযান চালিয়ে মালামাল নিয়ে গেছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. মনজুর রহমান জানান, বার কর্তৃপক্ষ অ’বৈধভাবে আবাসিক হোটেলে ডিসকোবার পরিচালনা করে আসছিল।

সেখানে মা’দক বিক্রি ও সেবনসহ অ’সামাজিক কার্যকলাপ চলত। বার কর্তৃপক্ষ লাইসেন্সসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আছে বলে দাবি করলেও অভিযানকালে তারা কোন বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।

Loading...