Home | সংবাদ | ইতিহাসও প্রতিশোধ নেয়: প্রধানমন্ত্রী

ইতিহাসও প্রতিশোধ নেয়: প্রধানমন্ত্রী

যতই মোছার চেষ্টা করা হোক, ইতিহাসও প্রতিশোধ নেয়, শিক্ষা দেয়। আজ ৭ মার্চের ভাষণ স্বীকৃতি পেয়েছে। পৃথিবীর কোন ভাষণ এতদিন, এত ঘণ্টা প্রচারিত হয়নি। যতই বাধা এসেছে ততই মানুষ জাগ্রত হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১৮ নভেম্বর) বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণটি ইউনেস্কো ঘোষিত ‘প্রামাণ্য ঐতিহ্যে’র স্বীকৃতি পাওয়া উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করেছে ইউনেস্কো। অথচ একসময় এই ভাষণ নিষিদ্ধ ছিল। যারা এই ভাষণ নিষিদ্ধ করেছিলো, তাদের কী লজ্জা হয় না, তাদের কী ঘৃণা হয় না। তারা তো পাকিস্তানি প্রেতাত্মা। তাদের জন্যই একটি বিজয় জাতি বিজয়ের ইতিহাস জানতে পারেনি, এর চেয়ে দুভার্গ্য হয় না।’প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় দেশের নাগরিক সমাজ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ সমাবেশের আয়োজন করে। এতে নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতিত্ব করেন এমিরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। এ বছরের ৩১ অক্টোবর (মঙ্গলবার) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানায়, একাত্তরের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেওয়া ভাষণ ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’ হিসেবে ইউনেস্কোর ‘মেমোরি অফ দা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারে’ যুক্ত হয়েছে।

About admin

Check Also

গুপ্তধনের খোঁজে মিরপুরে ঘরের মেঝে খুঁড়ছে পুলিশ প্রশাসন

রাজধানীর মিরপুরের একটি বাড়িতে গুপ্তধনের সন্ধানে মাটি খুঁড়ছে প্রশাসন ও পুলিশ। বাড়িটির মাটির নিচে কমপক্ষে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *