Home | সংবাদ | লালসালুর আস্তানা পণ্ড

লালসালুর আস্তানা পণ্ড

পটুয়াখালীতে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীর লালসালুর অস্থায়ী দরগা (আস্তানা) পণ্ড করে দিয়েছে পুলিশ।শুক্রবার রাঙ্গাবালী উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের মোল্লার বাজার সেতুর দক্ষিণ পাশের ওই আস্তানায় মোমবাতি জ্বালিয়ে ঝাড়-ফুঁ এবং তৈলপড়া দিয়ে সব রোগের চিকিৎসা করা হচ্ছিল।  
ধীরে ধীরে রোগীর জটলা বাড়ার সঙ্গে হাদিয়াও (ফি) বাড়ানো হচ্ছিল শতভাগ।
আস্তানাটিতে ওই নারীকে সহায়তায় ছিল কতিপয় এক খাদেম (সহযোগী)।  
খবর পেয়ে পুলিশ আস্তানাটি পণ্ড করে দেয়।

সেখানে চিকিৎসা নিতে আসা ওই ইউনিয়নের ভূঁইয়ার হাওলা গ্রামের হাজেরা বেগমের সঙ্গে এ প্রতিনিধির কথা হয়।
তিনি বলেন, ‘গা-হাতে বিষব্যথা। তাই ত্যাল (তৈল) পড়া নিতে আইছি। আমাগো গ্রামের মাতারি (মহিলা)-ব্যাডারাও (পুরুষ) আইছে। দেহি হের ওছিলায় আল্লাহ যদি রোগ মাফ করে।’

এ সময় একই ইউনিয়নের কোড়ালিয়া গ্রামের মিজানুর হাওলাদার বলেন, ‘এসব পুরো ভণ্ডামি ছাড়া আর কিছু না। আমাদের এলাকার কিছু লোক ওই মহিলাকে দিয়া ঝাড়-ফুঁ করিয়ে টাকা কামাই করছে। এলাকায় সরকারি হাসপাতাল না থাকায় এ ধরনের ভণ্ডামি দিন দিন বেড়েই চলছে।’

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার ওই ইউনিয়নের মোল্লার বাজার সেতুর দক্ষিণ পাশে মানসিক ভারসাম্যহীন এক অজ্ঞাত নারী আশ্রয় নেয়।
পরে কোড়ালিয়া ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য রুহুল আমিন হাওলাদার ওরফে রওশন আলীসহ স্থানীয় কয়েকজন লোক নিজেদের উদ্যোগে লালসালু কাপড় দিয়ে অস্থায়ী দরগা তৈরি করে।

তারা প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে ওইদিন থেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন ওই মহিলাকে দিয়ে ঝাড়-ফুঁ এবং তৈলপড়া দিয়ে বাতব্যথা, বন্ধ্যাত্ব দূরকরণ, গ্যাস্ট্রিক, আলসার, জণ্ডিসসহ পুরুষ ও মহিলাদের সব রোগের চিকিৎসা শুরু করে।
বিভিন্ন এলাকার লোকজন ছুটে আসতে থাকে।

প্রথম দিকে হাদিয়া ১০ টাকা ছিল। পরে রোগীদের ভিড় বাড়ার কারণে শুক্রবার সকাল থেকে হাদিয়া ১১০ টাকা ধার্য করে খাদেমরা।
পরে রাঙ্গাবালী থানার এসআই জাকির হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসে তাদের এ আয়োজন পণ্ড করে দেয়।
 
এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি মিলন কৃষ্ণ মিত্র বলেন, ‘ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে আস্তানাটি গুটিয়ে দিয়ে ওই নারীকে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, ‘স্থানীয় কিছু লোক ওই নারীকে দিয়ে এ কাজ করায়। পুলিশ যাওয়ার খবর পেয়ে ওই সব লোকজন পালিয়ে যায়।’

About admin

Check Also

গুপ্তধনের খোঁজে মিরপুরে ঘরের মেঝে খুঁড়ছে পুলিশ প্রশাসন

রাজধানীর মিরপুরের একটি বাড়িতে গুপ্তধনের সন্ধানে মাটি খুঁড়ছে প্রশাসন ও পুলিশ। বাড়িটির মাটির নিচে কমপক্ষে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *