Home | টেলিগ্রাফ | আওয়ামী এমপির বাড়িতে ডাকাতি

আওয়ামী এমপির বাড়িতে ডাকাতি

ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দবিরুল ইসলামের বালিয়াডাঙ্গির বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (১২ মার্চ) দিনগত রাত সাড়ে ৩টা থেকে সাড়ে ৪টার মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। দবিরুল ইসলামের ছোট ভাই সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘ডাকাতেরা বাসার আটটি কক্ষ তছনছ করেছে। সোনার অলঙ্কারসহ আরও কিছু গুরুত্বপুর্ণ মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।’ পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে ঘটনার পর এক তাৎক্ষণিক অভিযান চালানো হয়। এ অভিযানে উপজেলার লোল পুকুরের পশ্চিম পাশের এক বাঁশঝাড়ে ডাকাতির সময় ব্যবহৃত শাবল, গহনার বক্স, মুখোশ, বোমা পাওয়া গেছে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমার জানান, ‘একজন এমপির বাসায় ডাকাতির ঘটনা দুঃখজনক। গুরুত্বের সঙ্গে ঘটনার তদন্ত চলছে। তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু জানানো যাচ্ছে না। পরবর্তী সময়ে এ ব্যাপারে জানানো হবে।’
ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক আখতারুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন, ‘পুলিশ তদন্ত করছে। আমিও বিষয়টি দেখলাম।’ উল্লেখ্য, দবিরুল ইসলাম বর্তমানে বিদেশে অবস্থান করছেন। ঠাকুরগাঁও-২ আসনের ছয় বারের নির্বাচিত এই এমপি গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান। উৎস- বাংলা ট্রিবিউন
চড়ুই উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের দুই গাড়ি
একটি চড়ুই পাখি ঝুলছিল ঘুড়ির সুতায়। আর ঘুড়ির সুতাটি আটকে ছিল বিদ্যুতের তারে। পাখিটি মুক্তি পেতে উড়ে যাওয়ার প্রাণপণ চেষ্টা করেও বারবার ব্যর্থ হচ্ছে। তার সঙ্গী মাঝে মাঝেই লেজ নাড়িয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে পর্যবেক্ষণ করছিল বিষয়টি। কিন্তু সঙ্গীকে বাঁচাতে কিছুই করার ছিল না অসহায় পাখিটির!

ঘটনাস্থল রাজশাহী নগরীর আলুপট্টি এলাকা। সমকালের রাজশাহী ব্যুরো প্রধান সৌরভ হাবিব বিষয়টি জানালা দিয়ে দেখে বেশ কিছুক্ষণ চেষ্টা করেন পাখিটিকে মুক্ত করতে। কিন্তু প্রায় তিরিশ ফুট উচ্চতায় আটকে থাকা পাখিটাকে মুক্ত করার কোনও পথ না পেয়ে হতাশ হন। এরপর ফোন করে খবর দেন ফায়ার সার্ভিসকে।
দুপুর ১২টার দিকে খবর পাওয়ার ১০ মিনিটের মধ্যেই দু’টি গাড়ি নিয়ে হাজির হন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। দু’টি ইউনিটে ১০ জন সদস্য। তারা মই দিয়ে উঠে মুহূর্তেই মুক্ত করেন পাখিটিকে। পাখিটি তখনই কিচিরমিচির শব্দ করে মুক্তির আনন্দে উড়ে যায় আকাশে। আর জড়ো হওয়া উৎসুক শত শত মানুষ তখন হাততালি দিয়ে উল্লাস প্রকাশ করতে থাকেন।

সাংবাদিক সৌরভ হাবিব বলেন, ‘পাখি বাঁচাতে ফায়ার সার্ভিস গাড়ি নিয়ে ছুটে আসবে তা ধারণায় ছিল না। আনেকটা হতাশা নিয়েই ফোন করি। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই ফায়ার সার্ভিসের দু’টি গাড়ি হুইসেল বাজাতে বাজাতে ছুটে আসে। এসময় অনেক মানুষ জুটে যায়। তারা ভেবেছিলেন কোথাও আগুন লেগেছে।
ভুল ভাঙলো যখন পাখিটিতে দেখিয়ে দেই তখন। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কোনও অবহেলা করেনি। বরং দ্রুত তারা মই লাগিয়ে পাখিটিকে মুক্ত করেছেন। পাখিটি মুক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সবাই হাততালি দিয়ে উল্লাস প্রকাশ করেন। কেউ কেউ বলতে থাকেন, একটি প্রাণ বাঁচলো, মহান একটি কাজ হলো। আবার কেউ কেউ তাচ্ছিল্যের সঙ্গে বলেন, একটি পাখির জন্য এত বাড়াবাড়ি ঠিক হয়নি।’

সাংবাদিক সৌরভ হাবিব বলেন, ‘একটি প্রাণ বাঁচানো প্রতিটি মানুষেরই দায়িত্ব হওয়া উচিত। এ কাজ দায়িত্ব নিয়ে করার জন্য ফায়ার সার্ভিসকে ধন্যবাদ এবং এই বিভাগটিকে যুগোপযোগী ও আধুনিক করায় বর্তমান সরকারকেও ধন্যবাদ।’
ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন আফিসার মেহেরুল ইসলাম বলেন, ‘যে কোনও দুর্ঘটনায় সাড়া দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। আমরা প্রত্যেকটা প্রাণেরই সমান মূল্য দিই। যেকোনও দুর্ঘটনায় আমরা ছুটে যাই। এটা আমাদের কর্তব্য। তাই যে কোনও ছোট-বড় দুর্ঘটনা বা দুর্যোগে আমাদের খবর দিলে আমরা ছুটে যাবো। এতে হতাশা বা বিব্রত হওয়ার কোনও কারণ নেই। চড়ুই পাখি উদ্ধারে আমাদের দু’টি ইউনিটের ১০ জন সদস্য অংশ নেন।’

প্রাণ বৈচিত্র্য সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংগঠন বারসিক-এর আঞ্চলিক সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘এই কাজ অনেক মানবিক ও সচেতনামূলক। এভাবেই সব প্রাণের বেঁচে থাকার অধিকার আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।’
Like this:Like Loading…

Related

About admin

Check Also

‘দিল্লি লুটের সময়ও এত টাকা লুট হয়নি’

দেশের ব্যাংক ও আর্থিক খাতের বিশৃঙ্খলা ও অনিয়ম নিয়ে জাতীয় সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *