করোনায় দিল্লির শতাধিক সেনা আক্রান্ত

112

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দিল্লিতে আধাসামরিক বাহিনী(সিআরপিএফ) এর ১২২ সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। দিল্লির ময়ূর বিহারে মোতায়েন সিআরপিএফের ৩১ ব্যাটেলিয়ানের ১২২ জওয়ান করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এখনও ১০০ জওয়ানের করোনা পরীক্ষার ফল আসা বাকি রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির হিন্দি ওয়েবসাইটে ওই তথ্য জানানো হয়েছে।

করোনাভাইরাসের কারণে গত ২৮ এপ্রিল সিআরপিএফের ৩১ ব্যাটেলিয়ানের এক জওয়ান মারা গিয়েছিল। একই ব্যাটেলিয়নের ৪৫ জন জওয়ান গত সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, যার সংখ্যা এখন ১২২-এ পৌঁছেছে। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে, সংশ্লিষ্ট ব্যাটেলিয়ানকে কোয়ারেন্টিনসহ সবাইকে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

গত ২৮ এপ্রিল, দিল্লিতে মোতায়েন থাকা সিআরপিএফের ৫৫ বছর বয়সী উপ-পরিদর্শক দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে মারা যান। অসমের বাসিন্দা ওই উপ-পরিদর্শক ডায়াবেটিস এবং উচ্চ রক্তচাপের রোগী ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাসহ ৩১ ব্যাটেলিয়নের অন্য জওয়ানরা কুপওয়াড়াতে মোতায়েন ১৬২ ব্যাটেলিয়নের প্যারামেডিক্যাল কর্মীর সংস্পর্শে এলে করোনা আক্রান্ত হয়ে পড়েন।

নয়ডার বাসিন্দা ওই কর্মী ছুটিতে থাকার পরে লকডাউনে আটকে পড়লে বিশেষ নির্দেশে তিনি গত ৭ এপ্রিল দিল্লির ময়ূর বিহারে ৩১ ব্যাটেলিয়ানে কাজে যোগ দেন। নিয়ম অনুযায়ী তাঁকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হলেও সে সময় তাঁর দেহে করোনা ধরা পড়েনি। ১৭ এপ্রিল, তাঁর করোনা উপসর্গ শুরু হলে তাঁকে পুনরায় পরীক্ষা করা হয়।

২০ এপ্রিল তাঁর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। অবশেষে তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তাঁর সংস্পর্শে আসা জওয়ানদের খোঁজ করে পরে প্রথমে কোয়ারেন্টিন এবং তারপরে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট ব্যাটেলিয়ানে কমপক্ষে ৬০০ জওয়ান ও কর্মকর্তা রয়েছেন। মেডিকেল স্টাফ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ দিয়ে কারও ক্যাম্প ছাড়ার অনুমতি নেই বা কারও ভেতরে ঢোকারও অনুমতি নেই।