তুরস্ক থেকে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করছে ভারত

28

স্টাফ রিপোর্টার: তুরস্ক থেকে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করছে ভারত
আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশে রফতানি বন্ধ করার পর এবার খোদ ভারতই পেঁয়াজ আমদানি করছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান এমএমটিসি তুরস্কের কাছ থেকে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করছে।

এর আগে এমএমটিসি-র মাধ্যমে মিশর থেকে পেঁয়াজ আমদানি করার চুক্তি করে ভারত। ওই চুক্তি অনুযায়ী চলতি মাসেই ভারতে পৌঁছাবে ৬ হাজার ৯০ টন পেঁয়াজ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, এমএমটিসির মাধ্যমে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর আগে, মিসর থেকে ৬ হাজার ৯০ টন পেঁয়াজ কেনার চুক্তি হয়। সেই পেঁয়াজের চালান ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহেই আসার কথা রয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আসা শুরু করবে। ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহেই মিশর থেকে পেঁয়াজ পৌঁছবে মুম্বাইয়ের জওহরলাল নেহরু বন্দরে। এর পর মু্ম্বাইয়ে ৫২-৫৫ রুপি এবং দিল্লিতে ৬০ রুপি কেজি দরে পেঁয়াজ পাওয়া যাবে বলে জানা গেছে।

গত কয়েক দিনে দেশটিতে পেঁয়াজের দাম ঊর্ধ্বমুখী। কলকাতাসহ দেশের প্রধান শহরগুলোতে পেঁয়াজের দাম ১০০ টাকার বেশি। এমন পরিস্থিতিতে গত সপ্তাহেই বিদেশ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টন পেঁয়াজ কেনার অনুমোদন দেয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। সেই সঙ্গে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে পেঁয়াজের রফতানিও।

পেঁয়াজ মজুদ রাখার সীমাও বেঁধে দেওয়া হয়েছে।
পেঁয়াজের মূল্য নিয়ন্ত্রণে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে মন্ত্রিদের একটি টিম গঠন করা হয়েছে এবং তা কাজ শুরু করেছে। এই টিমে আরও রয়েছেন, অর্থমন্ত্রী, ভোক্তা-বিষয়কমন্ত্রী, কৃষিমন্ত্রী ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী। এছাড়া সচিব পর্যায়ের একটি টিমও কাজ করছে।
৩০ নভেম্বর ভারতের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোতে পেঁয়াজের মূল্য সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে। ওই দিন প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয় ৭৫ রুপিতে। সর্বোচ্চ মূল্যে বিক্রি হয়েছে মায়াবান্দার এলাকায়। সেখানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয় ১২০ রুপিতে।

১৯ নভেম্বর ভারতের খাদ্য ও ভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী রাম বিলাস পাসওয়ান বলেছিলেন, ২০১৯-২০ মৌসুমে পেঁয়াজের উৎপাদন ৫.২ মিলিয়ন টন (২৬ শতাংশ) কমেছে।

ভারতের ভোক্তাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, দিল্লিতে ৭৬, মুম্বাইয়ে ৮২, কলকাতায় ৯০ ও চেন্নাইয়ে ৮০ রুপিতে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। সবচেয়ে কম দামে পেঁয়াজ রয়েছে মধ্য প্রদেশের গোয়ালিওরে। সেখানে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৪২ রুপিতে।

Loading...